16 C
Kolkata
Friday, January 22, 2021
Home খবর বাড়ছে লকডাউন , ২০ লক্ষ কোটির প্যাকেজ ঘোষণা মোদীর

বাড়ছে লকডাউন , ২০ লক্ষ কোটির প্যাকেজ ঘোষণা মোদীর

আর্থিক ব্যবস্থাকে বিপর্যয় থেকে রক্ষা করতে এবং ‘স্বনির্ভর ভারত’ গঠনের জন্য প্রধানমন্ত্রী ২০ লক্ষ কোটি টাকার ‘আর্থিক প্যাকেজ’ ঘোষণা করেছেন।যাইহোক, তিনি নিজেই উল্লেখ করেছিলেন, এটি সম্পূর্ণ নতুন নয়। দরিদ্রদের মোকাবেলা করার জন্য ফেডারেল সরকার ইতিমধ্যে চালু করা মিশন এবং অর্থের প্রসার বাড়ানোর জন্য রিজার্ভ ফিনান্সিয়াল সংস্থা চালু করা এই 20 লক্ষ কোটি টাকার অংশ হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী বর্তমান এই আর্থিক প্যাকেজ’ কোথায় কতখানি ব্যবহার করা হবে তা বলেননি। তিনি উল্লেখ করেছিলেন যে পরবর্তী কয়েকদিনের মধ্যেই অর্থমন্ত্রী নির্মলা সিথারমন সমস্ত মূল বক্তব্য দেবেন। যাইহোক, মোদীর আশ্বাস যে আর্থিক প্যাকেজ’ কুটির শিল্প, ছোট এবং মাঝারি শিল্প সংস্থাগুলি, সংস্থা জগতের কর্মী এবং কৃষককে শ্রেণির লোক কে দেওয়া হবে । জমি ও শ্রম আইনী নির্দেশিকাগুলির সাহসী সংস্কার হবে। যা ভারতকে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হতে সহায়তা করতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী প্যাকেজ’এর প্রধান পয়েন্টগুলি ঘোষণা করেননি, সুতরাং কোনও ভাল বা অস্বাস্থ্যকর প্রতিক্রিয়া প্রত্যাশিত হয়নি। শিল্পপতি আনন্দ মাহিন্দ্রার সাথে তাল মিলিয়ে, মূল বিষয়গুলি স্বীকৃত হয়ে উঠলে এই পছন্দটি 1991 সালের মতো একটি মোড় নিতে সক্ষম হবে কিনা তা বোঝা যাবে!

তবে কিছু অর্থনীতিবিদের উপর ভিত্তি করে, 20 লক্ষ কোটি টাকার পুরোটা কেন্দ্র বহন করবে না, এটি স্পষ্ট। লকডাউনের পরে মোদী কর্তৃপক্ষ একটি দরিদ্র কল্যাণ মিশনে  ১.৭ লক্ষ কোটি টাকা ঘোষণা করেছে। আরবিআইয়ের সহায়তার পরিমাণ সাড়ে চার লাখ কোটি টাকা। মোট ৬.২ লক্ষ কোটি টাকা। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার ভিত্তিতে , প্রায় 12.7 লক্ষ কোটি অতিরিক্ত আর্থিক সহতা করতে চলেছে কেন্দ্র।

ইতিমধ্যে, অর্থ মন্ত্রক নিজেই উল্লেখ করেছে যে তারা এই বছরে আরও ৪.২ লক্ষ কোটি টাকা ঋণ নেবে। অর্থনীতিবিদ প্রসেনজিৎ বসু বলেছেন, এর কারণেই কেন্দ্রীয় কর্তৃপক্ষের পক্ষে এটিকে আরও বেশি অর্থ প্রদান করা বা ‘আর্থিক উত্সাহ’ প্রদান করা সম্ভব নয়। জিএসটিতে ছাড়, রাজস্ব কর, সংস্থার ট্যাক্স আয়, অতিরিক্ত ডেবিট সব ছাড়ের কারনে অতিরিক্ত আয় না হয়ার কারনে আই ঋন।

প্রাক্তন অর্থ সচিব সুভাষ চন্দ্র গার্গের সাথে মিল রেখে প্রচুর আর্থিক বান্ডিল ঋণ হিসাবে দেওয়া হবে। যদি তা হয় তবে 20 লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজের পরিমাণ তাই কতটা‌ যুক্তিযুক্ত, সেই প্রশ্ন উঠছে।

তবে, মঙ্গলবার তার ভাষণে মোদী অতিরিক্তভাবে লকডাউনের চতুর্থ পর্ব সম্পর্কে কথা বলেছেন। এটির সাথে , চতুর্থ পর্বের লকডাউন সম্পূর্ণ আলাদা হবে জানান । তিনি রাজ্যগুলির মত নিয়ে লকডাউন এগিয়ে যাওয়ার পথটি বেছে নিয়েছেন । তিনি মুখ্যমন্ত্রীদের অনুরোধ কোন রাষ্ট্র কতটা ছাড় নেবে লিখিতভাবে বলতে হবে। বর্তমান লকডাউন ব্যবধানটি শেষ হবে ১৮ই মে এর আগেই। মোদী উল্লেখ করেছেন যে দেশের জনগণ 16 ই মে আগে নতুন নির্দেশিকাগুলি সম্পর্কে জানবেন । এর পরই তিনি বলেন, “সমস্ত নিয়ম মেনে চলে লড়াই করব এবং এগিয়ে চলব।’’

Most Popular

TODAY'S TOP NEWS